প্রথম ম্যাচ জিতে সিরিজে লিড নিলো টাইগাররা


মোঃ জামাল উদ্দিন কালাচাঁদ : ৩ ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়েকে রানে ২৮ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। আজ বাংলাদেশের ছুঁড়ে দেয়া ২৭২ রানের লক্ষ্য ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেটে ২৪৩ রান তোলে জিম্বাবুয়ে। ফলে রানে জিতে সিরিজে লিড নিয়েছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের হয়ে একাই লড়াই করেন শেন উইলিয়ামসন। তিনি আদায় করেন অর্ধশতক। এ ছাড়া কাইল জার্ভিস করেন ৩৭ রান।

আজ রান তাড়ায় জিম্বাবুয়ের সূচনা ছিল উড়ন্ত। সেই উড়ন্ত জিম্বাবুয়েকে ধীরে ধীরে মাটিতে নামিয়ে রানের গতিতে টান দেয়ার সঙ্গে উইকেট তুলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে বাংলাদেশ। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে রান তাড়ায় নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৭ ওভারে ৪৮ রান তুলে ফেলেন দুই সফরকারী ওপেনার হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও সেফাস জুওয়াও। অধিনায়ককে একপ্রান্তে রেখে আগ্রাসী ছিলেন জুওয়াওই। মাশরাফী ও মিরাজকে সামলে তুলে ফেলেন ২৩ বলে ৩৫ রান।
জুটি ভাঙতে অষ্টম ওভারে নিজের তুরুপের তাস মোস্তাফিজুর রহমানকে আক্রমণে আনেন মাশরাফী। বোলিংয়ে এসেই অধিনায়ককে নির্ভার করেন ফিজ। প্রথম বলেই উপড়ে দেন জুওয়াওয়ের অফস্টাম্প।

মোস্তাফিজের দেখানো পথে হেঁটে পরের আঘাত হানেন নাজমুল ইসলাম অপু। একাদশ ওভারে এ বাঁহাতির আর্ম বলে ৫ রানে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ব্রেন্ডন টেলর। দুই ওভার বাদে ২১ রানে অধিনায়ক মাসাকাদজা রানআউট হয়ে ফিরলে ৬৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে জিম্বাবুয়ে।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে জিম্বাবুয়ের ইনিংস মেরামতের কাজ করছিলেন সিকান্দার রাজা ও ক্রেগ আরভিন। টাইগার বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের চাপ সামলে দুজনে গড়েন ২৫ রানের জুটি।

জুটিটা বড় হতে দেননি নাজমুল। ৭ রানে থাকা রাজার অফস্টাম্পের মাথা নাড়িয়ে দেন আরেকটি আর্ম বলে। আরভিনকেও থিতু হতে দেননি মিরাজ। ২৪ রান করা এ জিম্বাবুইয়ানকে বোল্ড করেন টাইগার অফস্পিনার।

আর নবম উইকেট কাইল জার্ভিসকে মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বাংলাদেশের বোলারদের হয়ে ৩টি উইকেট নেন মেহেদি মিরাজ। আর ২টি উইকেট নেন নাজমুল ইসলাম অপু।