আমার হাতে কোনো রক্তের দাগ নেই : এরশাদ


নিজস্ব প্রতিবেদক: পৃথিবীর ইতিহাসে নিজেকে বিরল ইতিহাসের নায়ক হিসেবে দাবি করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তার দাবি, আমার হাতে কোনো রক্তের দাগ নেই। আমি স্বেচ্ছায় ক্ষমতা হস্তান্তর করেছি।

সোমবার সকালে দলীয় কার্যালয়ে এক যৌথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এরশাদ এসব কথা বলেন।

এরশাদ বলেন, ‘আমি সৈনিক ছিলাম। ১৯৮৩ সালে ক্ষমতা গ্রহণ করার পর ১৯৮৪ সালে নির্বাচন দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু কোনো রাজনৈতিক দল নির্বাচনে আসেনি। তাই আমাকে ক্ষমতা গ্রহণ করতে হয়েছিল।’

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমার দল ২৬ বছর ক্ষমতার বাইরে। তবুও জাতীয় পার্টি ভেঙে যায়নি।’

এরশাদ বলেন, ‘অনেকে বলে থাকেন যে, বিএনপির জায়গায় আমরা যাবো, কিন্তু বাস্তবে তা সম্ভব নয়। কারণ বিএনপি অনেক মানুষ হত্যা করেছে, নির্যাতন করেছে। আমার হাতে রক্তের দাগ নেই। বিএনপি’র স্থানে আমরা যাবো না।’

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমরা নিঃশেষ হয়ে যাইনি। সুষ্ঠু নির্বাচন দিলে আমরাই বিজয়ী হবো।’

এরশাদ বলেন, ‘অনেক অত্যাচার, অন্যায়, জুলুম, নিপীড়ন ও নির্যাতনের পরেও জাতীয় পার্টির ঐক্য অটুট রয়েছে। নয় বছর জাতীয় পার্টির সরকার দেশ পরিচালনা করেছে। ওই সময় বিএনপিসহ বিরোধী দল ৩৬৫ দিন হরতাল করেছে এবং ভালোভাবে দেশ পরিচালনা করতে দেয়নি।’

জাপা মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি’র সভাপতিত্বে যৌথ সভায় বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এসএম ফয়সল চিশতী, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মানিকগঞ্জ জেলা সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান প্রমুখ।